ছোট বউমার স’ঙ্গে অ’বৈ’ধ স’ম্প’র্ক, জানাজানি হতেই ল’ঙ্কাকা’ন্ড!

33

বেশ কয়েক বছর ধ’রেই ছোট বউমা’র স’ঙ্গে অবৈ’ধ স’স্পর্ক চলছিল শ্ব’শুরের (৫৫)। তার জে’র ধ’রেই স্ত্রী এবং বড় ছেলের স্ত্রী'র হাতে খু,ন হতে হল শ্ব’শুরকে। ধা’রালো অ’স্ত্র দিয়ে স্বা’মীর গলা কে’টে দেন স্ত্রী এবং তার বড় ছেলের স্ত্রী।

ঘ’টনাটি ঘ’টেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের ভাদোহি জে’লায় কোইরানা পু’লিশ স্টেশন এলাকার অন্তর্গত একটি গ্রামে। ঘ’টনা জা’নাজানি হওয়ার পর চাঞ্চল্য ছ’ড়িয়ে প’ড়েছে গোটা এলাকায়। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নি’শ্চিত ক’রেছেন ভাদোহি জে’লায় কোইরানা পু’লিশ স্টেশনের এসপি রাম বাদান সিং।

জা’না যায়, ৫৫ বছরের ওই ব্য’ক্তিকে হা’সপাতা’লে নিয়ে যাওয়া হলেও তাকে স’ঙ্গে স’ঙ্গে ই মৃ’ত বলে ঘো’ষণা ক’রেন চিকি’ৎসক’রা। মৃ’ত ব্য’ক্তির চার ছেলে রয়েছেন। তারা প্রত্যেকেই মুম্বইয়ে শ্রমিকের কাজ ক’রেন। এই সুযোগে ছোট ছেলের স্ত্রী'র স’ঙ্গে অবৈ’ধ স’স্পর্ক গড়ে তুলেছিলেন শ্ব’শুর। ঘ’টনার জা’নাজানি হলে ওই,

বউমাকে তার বাপের বাড়িতেও পাঠিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু তাতেও স’মস্যা মেটেনি। শেষপর্যন্ত নিজে’র স্ত্রী এবং বড় ছেলের স্ত্রী'র হাতেই খু,ন হতে হল শ্ব’শুরকে। ছোট বউমা’র স’ঙ্গে তার স’স্পর্কের বিষয়টি জা’নাজানি হওয়ার পরেই স’মস্যা বাড়ছিল।

এর জে’রে প্রায়শই অশান্তি লে’গে থাকত। এমনকী, নিজে’র স্ত্রীকে বাড়ি থেকে বের ক’রে অন্য একটি বাড়িতে রাখার চেষ্টাও ক’রেছিল ওই ব্য’ক্তি। কিন্তু সেটা শেষপর্যন্ত সম্ভব হয়নি। তার আগেই খু,ন হতে হল শ্ব’শুরকে।