শত বছর পেরিয়ে গেলেও ব্লেডের নকশা কেন বদলায়নি জানেন?

162

ব্লেড একটি অতিপরিচিত বস্তু। বহু কাল থেকেই চুল-দাড়ি থেকে নখ কাটা-সহ বিভিন্ন কাজে ব্যবহার হয়ে আ’সছে এই ব্লেড ।

কিন্তু ভেবে দেখেছেন কি’ যে কোম্পানির তৈরি ব্লেডই ব্যবহার করুন না কেন’ তার আ’’কার কেন একই হয়? এর কারণ জানতে গেলে জে’নে নিতে হবে ব্লেড তৈরির ইতিহাস। ১৯০১ সালে আমেরিকায় ব্যবসা শুরু করে ব্লেড প্র’স্তুতকারী সংস্থা জিলেট। ১৯০৪ সালে এই সংস্থার তৈরি ‘কিং ক্যাম্প’ বিভাগের ব্লেড বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করে।

এরপর ব্লেডের ব্যবসায় আর পিছন ফি’রে তাকাতে হয়নি জিলেটকে। আধুনিক যুগে সারা পৃথিবীতে অনেক সংস্থাই সাধারণ কাজে ব্যবহারের জন্য ব্লেড প্র’স্তুত করে। কিন্তু প্রত্যেকেই ওই পুরনো নকশা মেনেই তৈরি করে ব্লেড। জিলেটের পুরনো নকশার ব্লেড প্র’স্তুতের ইতিহাসের দিকে চোখ রাখলে জা’না যায়’ তৎকালীন সময়ে,

ব্লেডের স’ঙ্গে রেজারের হাতল আ’’টকানোর জন্য্‌ যে স্ক্রু ও নাট-বল্টু ব্যবহৃত হত’ তার মাপ ও আকৃতি মেনে এবং ব্লেডকে রেজারের স’ঙ্গে আ’’টকে রাখার ক্ষ’মতার কথা মাথায় রেখেই ব্লেডের নকশা প্রথম তৈরি হয়। উনিশ শ’ ত্রিশের দশকে মা’র্কিন দেশে এমনই রেজার বাজারজাত করে জিলেট। চুল-দাড়ি কাটা ছাড়াও গৃহস্থালীর,

অন্যান্য কাজেও ব্যবহৃত হতে থাকে এই নকশার ব্লেড। মানুষ এতেই অভ্যস্ত হয়ে যায়। ব্লেডের এই আ’’কার বিশ্বজুড়ে বিপুল জনপ্রিয় হয়। এতটাই যে’ পরবর্তীতে ব্লেডের নকশা মেনে তৈরি হতে থাকে নানা নকশার রেজার। যুগের স’ঙ্গে তাল মিলিয়ে স্ক্রু’ নাট-বল্টুর নানা সংস্করণ বাজারে এলেও সেগুলোকে কারিগরি দক্ষ’তায় ব্লেডের আ’’কারের স’ঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাজারজাত করা শুরু হয়।

আজকাল শেভিং ব্লেড হিসেবে নতুন কিছু প্রযু’ক্তির ব্লেড বাজারে এলেও পুরনো ব্লেড ব্যবহার করেন পৃথিবীর অনেক মানুষ। তাদের কথা মাথায় রেখে ১০০ বছর পরেও ব্লেডের নকশায় বদল আনেনি কোনও কোম্পানি। বরং আধুনিক পছন্দকে মাথায় রেখে নতুন নকশার রেজার ও ব্লেড বাজারজাত করেছে। তবু পুরনো ব্লেডের নকশায় হাত পড়েনি। সূত্র: আনন্দবাজার