মাত্র ২ লক্ষ টাকায় যেভাবে দোতলা বাড়ি বানাবেন!

121

যু’ক্তরাজ্যে যেখানে সাধারণ মানুষের একটি ছোটখাটো বাড়ি কেনার আগে বহু বছর ধ’রে অর্থ সঞ্চয় ক’রতে হয়, তারপরও ঋণ ছাড়া উপায় থাকে না,

সেখানে এক তরুণ দম্পতি নিজে’রাই নিজেদের জন্য বাড়ি তৈরি ক’রেছেন, যার জন্য খরচ প’ড়েছে ১ হাজার পাউন্ডেরও কম! যা বাংলাদেশী টাকায় প্রা’য় দুই লক্ষ টাকার সমপরিমান। ক্রিশ্চিয়ান মন্টেজ ও কাইরা পাওয়েল পুরোনো, বা’তিল এবং রিসাইকেল ক’রা (পুনর্ব্যবহারযোগ্য) সরঞ্জাম থেকে মাত্র ৯ সপ্তাহে তৈরি ক’রেছেন ছোট্ট একটি দোতলা বাড়ি।

৮ ফুট চওড়া, ১৬ ফুট লম্বা এবং ১২ ফুট উঁচু ওই বাড়িতে রয়েছে একটি ডাবল বেডরুম, একটি বসার ঘর, রান্নাঘর এবং একটি অফিসঘর। কেবিনের মতো ছোট্ট বাড়িটির নিচে চাকা লা’গানো থাকায় একে স্থা’য়ী বাসস্থান হিসেবে ধ’রা যায় না। তাই বাড়িটি তৈরির জন্য সরকারের কোনো অনুমোদনও প্রয়োজন হয়নি। ক্রিশ্চিয়ান জা’নান,

তাদের এলাকায় একটা ২ বেডরুমের বাসার দাম প’ড়ে গড়ে প্রা’য় ২ লাখ পাউন্ড। ‘আর সেটা যদি ভাড়া নেওয়া হয়, দেখবেন আপনার জমানো সব টাকাই এর পেছনে উড়ে যাচ্ছে।’ বাসা ভাড়া দিতে দিতে ক্লান্ত হয়ে যাচ্ছিলেন এই দম্পতি। টাকা জমানোর শত চেষ্টা ক’রেও তেমন কিছুই জমাতে পারছিলেন না ভাড়ার টাকা দিতে গিয়ে।

তাই হিয়ারফোর্ড এলাকার প্রান্তে কাইরার বাবা-মায়ের ৬০ এক’রের খামা’রবাড়িতে কেবিনসম বাড়িটি তৈরি ক’রেন তরুণ দম্পতি। ‘এই কেবিনটি আমা’দের কিছু সঞ্চয়ের সুযোগ ক’রে দিয়েছে,’ বলেন ক্রিশ্চিয়ান। ক্রিশ্চিয়ান ও কাইরা দু’জনেই ডিজাইনার। ক্রিশ্চিয়ান স্থাপত্যবিদ্যায় মা’স্টা’র ্স ক’রেছেন।

আর কাইরা অক্সফোর্ডের ন্যাশনাল স্কুল অব ফার্নিচার থেকে ডিগ্রিধারী। নিজ প্রতিভা কাজে লা’গিয়ে এই যুগল ১ হাজার পাউন্ডেরও কম খরচে একটি চাকাওয়ালা ট্রেইলার ফ্রেমের ওপর নিজেদের ছোট্ট ঠিকানাটি নি’র্মাণ ক’রেন। বাড়ির দেয়ালগুলো তৈরি ক’রা হয়েছে রিসাইকেল ক’রা কাঠের প্যানেল দিয়ে।

জা’নালা ও আসবাবের কাঁচামাল এসেছে বা’তিল জিনিস বিক্রির স্ক্র্যাপইয়ার্ড থেকে। এমনকি ওয়াশিং মেশিনের দরজা ব্যবহার ক’রে চিলেকোঠার বেডরুমে একটা ছোট গোলাকার জা’নালাও বানিয়েছেন তারা