ড্যান্স গ্রুপের নামে তরুণীদের দিয়ে দেহ ব্যব’সা!

103

জয়পুরহাট শহরে ড্যান্স গ্রুপের অন্তরালে ব্ল্যাকমেইল ক’রে তরু’ণীদের দিয়ে দে’হ ব্যবসায় বাধ্য ক’রানোর অ’ভিযো’গে তিনজনকে আ’টক ক’রেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন।

শনিবার মধ্যরাতে শহরের প্রফেসরপাড়া মহল্লা থেকে তাদের আ’টক ক’রা হয়। এ সময় তিন তরু’ণীকেও উ’দ্ধার ক’রা হয়। আ’টককৃতরা হলেন- জয়পুরহাট পৌর শহরের তাঁতিপাড়া মহল্লার মেহেদি হাসানের স্ত্রী মিনু আক্তার, গুলশান মোড় মহল্লার আবদুল মজিদের ছেলে সুমন আহম্মেদ এবং তার স্ত্রী মৌসুমি আক্তার।

র‍্যাব-৫ ক্যাম্প কমান্ডার অতিরি’ক্ত পু’লিশ সুপার এম এম মোহাইমেনুর রশিদ জা’নান, দীর্ঘদিন থেকে তরু’ণীদের নিয়ে একটি ড্যান্স গ্রুপ তৈরি ক’রেন তারা। এর অন্তরালে দে’হ ব্যবসায় চালিয়ে আসছিলেন সুমনসহ প্রতারকচক্রের সদস্যরা।

ড্যান্স শেখানোর নামে তরু’ণীদের ভ’য়ভীতি দেখিয়ে অশ্লী’ল ভিডিও ধারণ ক’রে দে’হ ব্যবসায় বাধ্য ক’রেন তারা। এমন তথ্যের ভিত্তিতে শহরের প্রফেসরপাড়ায় অ’ভিযা’ন চালিয়ে তিন তরু’ণীকে উ’দ্ধার, ৬টি ভিডিও ধারণের মোবাইল ফোনসহ তাদের আ’টক ক’রা হয়।

অপূর্বর ছেলে আয়াশ এখন কোটিপতি!—-
ছোট পর্দা’য় অভিনয় ক’রে সবার মন জয় ক’রে নিয়েছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। তার একমাত্র ছেলে জায়ান ফারুক আয়াশকেও একটি টেলিছবি দেখা গেছে। ২০১৮ সালে প্রথমবারের মতো ‘বিনি সুতার টান’ টেলিছবিতে ছেলের স’ঙ্গে অভিনয় ক’রেন অপূর্ব। বৃহস্পতিবার ইউটিউবে কোটি ভিউয়ের মাইলফলক ছুঁয়ে গেছে এটি।

শুধু তাই নয়, আয়াশের অভিনয়ের মাধ্যমেই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান গানচিলের প্রথম কোনো টেলিছবি ইউটিউবে কোটি ভিউ এর মাইল ফলক ছুঁতে পারলো।

‘বিনি সুতার টান’ নাটকে পিতা-পুত্রের ভূমিকায় অভিনয় ক’রেন অপূর্ব-আয়াশ। শিহাব শাহীন পরিচালিত এ নাটকে অপূর্বর স্ত্রী'র চরিত্রে অভিনয় ক’রেন জাকিয়া বারী মম। ২০১৮ সালের ২৩ আগস্ট ইউটিউবে প্রকাশ হয় এই টেলিছবিটি।

ছেলের প্রথম কাজেই এমন সাড়া পাওয়ায় বেশ খুশি অপূর্ব। তিনি বলেন, আয়াশ তার প্রথম কাজেই সবার এতো ভালোবাসা পেয়েছে যা সত্যি অভাবনীয়। এ কাজটা আমা’র কাছে অনেক প্রিয় হয়ে থাকবে সবসময়। প্রথম কাজে আয়াশের এমন অর্জনে আমি অনেক খুশি। ‘বিনি সুতোর টানে’র পুরো দলকে অভিনন্দন। সবাই দোয়া করবেন আয়াশের জন্য।

এর আগে অপূর্ব অভিনীত ‘বড় ছেলে’ ছেলে নাটকটি আড়াই কোটি ভিউ অতিক্রম ক’রেছে। নাটক-টেলিছবি হিসেবে ইউটিউবের ভিউয়ে এখনো এটি সর্বোচ্চ।